Logo
logo

সাহিত্য / কবিতা

এই শারদীয়া তারও

শারদীয়া আনন্দঘন মুহূর্ত আসছে সন্নিকটে,
সুদীর্ঘ দিন অপেক্ষার পরে,
মা আসছেন ঠিক একটি বছর ঘুরে |

এই শারদীয়া তারও যাকে কিছু মাস আগে,
স্বামীর চরম অত্যাচারের শিকার হয়ে,
নিজের সংসার ছেড়ে,
বাপের বাড়িতে আসতে হয়েছে,
একান্ত বাধ্য হয়ে।
তবে কদিন আগেই নতুন চাকরি পেয়েছে,
শারদীয়ার মাসেই।
তাই তারও মুখে আজ হাসি ফুটেছে,
মা আসছেন বলে।

এই শারদীয়া তারও যে মেয়েটার প্রেমিক,
ঠিক আগের বছরের পুজোতেও তার ছিলো।
এবছর কিন্তু অন্য মেয়ের হাত ধরে,
তার সেই প্ৰিয় মানুষটিই ঘুরবে ।
তাও মেয়েটি বিষাদ ভুলে,
মনে আশার আলো জ্বালিয়ে,
পুজোয় নতুন গানের অ্যালবাম বের করবে বলে,
মায়ের আগমণী গানে, হাসি মুখে মাকে ডাকছে।

এই শারদীয়া তারও
যার কোনো প্রিয়জন হারিয়েছে,
চিরদিনের তরে,করোনার গ্রাসে।
সেও হাসি মুখে বিষণ্ণতা কাটিয়ে উঠে,
সদ্য নবজাতক শিশুটাকে কোলে নিয়ে,
মায়ের আগমণীর দিন গুনছে।

এই শারদীয়া সেই যুবকেরও,
যার হয়তো ঘর বাড়ি ভেসে গিয়েছে,
যশের কবলে পড়ে।
অনেক কষ্টে কলকাতাতে একটা ভালো চাকরী, হঠাৎ ই পেয়েছে সেই যুবক টি,
সাথে কোয়ার্টার ওর মাকে নিয়ে থাকার,
তাই মা দুর্গা আসবে বলে হাসি মুখে,
নতুন পাড়ার পূজা-কমিটিতে,
যোগদান করেছে।

এই শারদীয়া সেই বৃদ্ধারও,
যার ছেলে বিলাতে বড় চাকরি করে বলে,
ওনাকে বৃদ্ধাশ্রমে পাঠিয়েছে মাস কয়েক আগে।
সে বৃদ্ধাশ্রমে তারই মত বঞ্চিত বহু বন্ধু পেয়ে,
বৃদ্ধাশ্রমেতেই এবারে দুর্গাপুজোর আয়োজনে মত্ত।


প্রকৃতি যেমন একদিক ভাঙ্গে,তেমনই একদিক গড়ে।
মানুষের জীবনেও তার ব্যতিক্রম নয় যে।
পুরনো দুঃখ বিষাদ ভুলে,নব আনন্দ নিয়ে,
আগমনীর সুরে আর শিউলি ফুলের
মন মাতানো গন্ধ নিয়ে,
পুজো আসছে সবার মনে খুশির আমেজ নিয়ে।

Contact US

Tel: 9903329047 / 8697419047
Email: sreemotirdarbar@gmail.com